টাঙ্গাইল ০৭:৫২ অপরাহ্ন, রবিবার, ১৪ এপ্রিল ২০২৪, ১ বৈশাখ ১৪৩১ বঙ্গাব্দ
সর্বশেষ খবর :
নানার বাড়ি বেড়াতে এসে  নদীতে গোছল করতে নেমে মাদ্রাসার ছাত্র  নিখোঁজ  কালিহাতীতে নববর্ষ উপলক্ষে শুভেচ্ছা বিনিময় ও সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠান  পবিত্র ঈদুল ফিতরের শুভেচ্ছা জানিয়েছেন কালিহাতী উপজেলা ভাইস চেয়ারম্যান পদপ্রার্থী মোঃ মোখলেছুর রহমান পবিত্র ঈদুল ফিতরের শুভেচ্ছা জানিয়েছেন কালিহাতী  উপজেলা ভাইস চেয়ারম্যান পদপ্রার্থী  মোঃ আব্দুল বারেক সরকার  কালিহাতী রিপোর্টার্স ইউনিটির ইফতার ও পরিচিতি সভা অনুষ্ঠিত পবিত্র ঈদুল ফিতরের শুভেচ্ছা জানিয়েছেন মো: শরিফুল ইসলাম পেঁয়াজের৷দাম ধ্বংস হচ্ছে কালিহাতীর গ্রামীণ জনপদ : ‘সিন্ডিকেটে’ চলছে বালুর ব্যবসা কালিহাতীতে বীর মুক্তিযোদ্ধা ও স্থানীয়দের সাথে মুক্তিযুদ্ধ বিষয়ক মন্ত্রীর মতবিনিময় আবার ধর্ষণের অভিযোগ বড় মনিরের বিরুদ্ধে !
ব্রেকিং নিউজ :

কালিহাতীতে বীর মুক্তিযোদ্ধা ও স্থানীয়দের সাথে মুক্তিযুদ্ধ বিষয়ক মন্ত্রীর মতবিনিময়

মো: নাহিদ খান
  • প্রকাশিত : শনিবার, ৩০ মার্চ ২০২৪
  • / ১৫২ বার পড়া হয়েছে

কালিহাতীতে বীর মুক্তিযোদ্ধা ও স্থানীয়দের সাথে মুক্তিযুদ্ধ বিষয়ক মন্ত্রীর মতবিনিময়

টাঙ্গাইলের কালিহাতীতে বীর মুক্তিযুদ্ধ স্থানীয়দের মুক্তিযোদ্ধা মন্ত্রীর মতবিনিময় করেছেন আ ক.ম মোজ্জামেল হক। শনিবার (৩০ মার্চ) দুপুরে উপজেলার বানিয়াফৈর এলাকায় এ মত বিনিময় সভা অনুষ্ঠিত হয়।
টাঙ্গাইলের কালিহাতী উপজেলার সহদেবপুর ইউনিয়নের বানিয়াফৈর চৌরাস্তা মোড়ে ১৯৭১ সালের ১০ ডিসেম্বর ভারতীয় ৩৬ সেনা সদস্য অবতরণ করেন। মুক্তিযুদ্ধের সেই প্রথম সেনা সদস্যদের স্মৃতিকে স্মরণীয় করে রাখতে বানিয়াফৈরে নির্মিত হচ্ছে মুক্তিযোদ্ধা জাদুঘর।
শনিবার মুক্তিযুদ্ধের স্মৃতি স্মৃতিস্তম্ভ স্থাপনে ভূমি অধিগ্রহণ পরিদর্শন করেন মুক্তিযোদ্ধা মন্ত্রী আ ক.ম মোজ্জামেল হক। এ সময় উপজেলার বীর মুক্তিযোদ্ধা বৃন্দ ও স্থানীয়দের সাথে মতবিনিময় করেন মুক্তিযুদ্ধ বিষয়ক মন্ত্রী।
জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের জন্মশতবার্ষিকী ও স্বাধীনতার সুবর্ণজয়ন্তী উদযাপন উপলক্ষে ভারতীয় সশস্ত্র বাহিনী অবসরপ্রাপ্ত ৩০ জন বীরসেনা সদস্য এবং ৬ জন চাকরিরত্ব সেনা সদস্য মুক্তিযুদ্ধের স্মৃতি জড়ানো টাংগাইল জেলা কালিহাতী উপজেলার বানিয়াফৈরে এসেছিলেন। তখন সরকারি ভাবে সিদ্ধান্ত হয় মুক্তিযুদ্ধের এই এলাকাটি স্মরণীয় করে রাখা দরকার। এ নিয়ে গত ২০ মার্চ মন্ত্রণালয় থেকে চিঠি পেয়ে প্রস্তুতি গ্রহণ শুরু করে উপজেলা প্রশাসন এবং ২৬ মার্চ স্থানীয় সাংসদ, সদস্য সাবেক মন্ত্রী, মুক্তিযুদ্ধের অন্যতম সংগঠক আবদুল লতিফ সিদ্দিকী বানিয়াফৈর জায়গায় পরিদর্শন করেন। এসময় উপস্থিতি ছিলেন উপজেলা সহকারী কমিশনার (ভূমি) মোহাম্মদ সিফাত বিন সাদেক, উপজেলা নির্বাহী অফিসার শাহাদাৎ হুসাইন।
এ অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন- টাংগাইল-৪ কালিহাতী আসনের স্বতন্ত্র এমপি আব্দুল লতিফ সিদ্দিকী, কালিহাতী উপজেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি মোজহারুল ইসলাম তালুকদার, সাধারণ সম্পাদক মোঃ আনোয়ার হোসেন মোল্লা, উপজেলা আওয়ামী লীগের সিনিয়র সহ-সভাপতি এবং দশকিয়া ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান এম এ মালেক ভূঁইয়া, উপজেলা আওয়ামীলীগ সাংগঠনিক সম্পাদক মনিরুজ্জামান মনির, উপজেলা মুক্তিযোদ্ধা কমান্ডার মিজানুর রহমান মজনু, সহদেবপুর ইউনিয়ন মুক্তিযুদ্ধ কমান্ডার শামসুর রহমান, সহদেবপুর ইউনিয়ন পরিষদ চেয়ারম্যান এবং ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সভাপতি মোখলেছুর রহমান খান ফরিদ, সহদেবপুর ইউনিয়ন আওয়ামীলীগের সাধারণ সম্পাদক মোহাম্মদ কাদের মল্লিকসহ স্থানীয় নেতৃবৃন্দরা উপস্থিত ছিলেন। এ ছাড়া উপস্থিত ছিলেন সককারি পুলিশ কমিশনার (কালিহাতী সার্কেল) মোঃ শরিফুল হক,কালিহাতী অফিসার ইনচার্জ মোহাম্মদ কামরুল ফারুক।
অনুষ্ঠানের সভাপতিত্ব করেন উপজেলা নির্বাহী অফিসার শাহাদাৎ হুসাইন। এসময় তিনি জানান মুক্তিযোদ্ধা জাদুঘর ও স্মৃতিস্তম্ভ তৈরিতে প্রকল্পের সম্পূর্ণ করেছি। এখন শুধু নির্মাণ কাজ শুরু।
এদিকে, কালিহাতী উপজেলার বানিয়াফৈর এলাকায় মুক্তিযোদ্ধা ও জনগণের সমাবেশে নৌকা মার্কার বিরুদ্ধে স্বতন্ত্র প্রার্থীকে অভিনন্দন জানিয়ে বক্তব্য দেওয়ায় কালিহাতী উপজেলা আওয়ামী লীগ। সেইসাথে নৌকা নিয়ে নির্বাচিত কালিহাতীর ইউপি চেয়ারম্যানরা ক্ষুব্ধ প্রতিক্রিয়া ব্যক্ত করেছেন।

ট্যাগস :

নিউজটি শেয়ার করুন

কালিহাতীতে বীর মুক্তিযোদ্ধা ও স্থানীয়দের সাথে মুক্তিযুদ্ধ বিষয়ক মন্ত্রীর মতবিনিময়

প্রকাশিত : শনিবার, ৩০ মার্চ ২০২৪

কালিহাতীতে বীর মুক্তিযোদ্ধা ও স্থানীয়দের সাথে মুক্তিযুদ্ধ বিষয়ক মন্ত্রীর মতবিনিময়

টাঙ্গাইলের কালিহাতীতে বীর মুক্তিযুদ্ধ স্থানীয়দের মুক্তিযোদ্ধা মন্ত্রীর মতবিনিময় করেছেন আ ক.ম মোজ্জামেল হক। শনিবার (৩০ মার্চ) দুপুরে উপজেলার বানিয়াফৈর এলাকায় এ মত বিনিময় সভা অনুষ্ঠিত হয়।
টাঙ্গাইলের কালিহাতী উপজেলার সহদেবপুর ইউনিয়নের বানিয়াফৈর চৌরাস্তা মোড়ে ১৯৭১ সালের ১০ ডিসেম্বর ভারতীয় ৩৬ সেনা সদস্য অবতরণ করেন। মুক্তিযুদ্ধের সেই প্রথম সেনা সদস্যদের স্মৃতিকে স্মরণীয় করে রাখতে বানিয়াফৈরে নির্মিত হচ্ছে মুক্তিযোদ্ধা জাদুঘর।
শনিবার মুক্তিযুদ্ধের স্মৃতি স্মৃতিস্তম্ভ স্থাপনে ভূমি অধিগ্রহণ পরিদর্শন করেন মুক্তিযোদ্ধা মন্ত্রী আ ক.ম মোজ্জামেল হক। এ সময় উপজেলার বীর মুক্তিযোদ্ধা বৃন্দ ও স্থানীয়দের সাথে মতবিনিময় করেন মুক্তিযুদ্ধ বিষয়ক মন্ত্রী।
জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের জন্মশতবার্ষিকী ও স্বাধীনতার সুবর্ণজয়ন্তী উদযাপন উপলক্ষে ভারতীয় সশস্ত্র বাহিনী অবসরপ্রাপ্ত ৩০ জন বীরসেনা সদস্য এবং ৬ জন চাকরিরত্ব সেনা সদস্য মুক্তিযুদ্ধের স্মৃতি জড়ানো টাংগাইল জেলা কালিহাতী উপজেলার বানিয়াফৈরে এসেছিলেন। তখন সরকারি ভাবে সিদ্ধান্ত হয় মুক্তিযুদ্ধের এই এলাকাটি স্মরণীয় করে রাখা দরকার। এ নিয়ে গত ২০ মার্চ মন্ত্রণালয় থেকে চিঠি পেয়ে প্রস্তুতি গ্রহণ শুরু করে উপজেলা প্রশাসন এবং ২৬ মার্চ স্থানীয় সাংসদ, সদস্য সাবেক মন্ত্রী, মুক্তিযুদ্ধের অন্যতম সংগঠক আবদুল লতিফ সিদ্দিকী বানিয়াফৈর জায়গায় পরিদর্শন করেন। এসময় উপস্থিতি ছিলেন উপজেলা সহকারী কমিশনার (ভূমি) মোহাম্মদ সিফাত বিন সাদেক, উপজেলা নির্বাহী অফিসার শাহাদাৎ হুসাইন।
এ অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন- টাংগাইল-৪ কালিহাতী আসনের স্বতন্ত্র এমপি আব্দুল লতিফ সিদ্দিকী, কালিহাতী উপজেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি মোজহারুল ইসলাম তালুকদার, সাধারণ সম্পাদক মোঃ আনোয়ার হোসেন মোল্লা, উপজেলা আওয়ামী লীগের সিনিয়র সহ-সভাপতি এবং দশকিয়া ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান এম এ মালেক ভূঁইয়া, উপজেলা আওয়ামীলীগ সাংগঠনিক সম্পাদক মনিরুজ্জামান মনির, উপজেলা মুক্তিযোদ্ধা কমান্ডার মিজানুর রহমান মজনু, সহদেবপুর ইউনিয়ন মুক্তিযুদ্ধ কমান্ডার শামসুর রহমান, সহদেবপুর ইউনিয়ন পরিষদ চেয়ারম্যান এবং ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সভাপতি মোখলেছুর রহমান খান ফরিদ, সহদেবপুর ইউনিয়ন আওয়ামীলীগের সাধারণ সম্পাদক মোহাম্মদ কাদের মল্লিকসহ স্থানীয় নেতৃবৃন্দরা উপস্থিত ছিলেন। এ ছাড়া উপস্থিত ছিলেন সককারি পুলিশ কমিশনার (কালিহাতী সার্কেল) মোঃ শরিফুল হক,কালিহাতী অফিসার ইনচার্জ মোহাম্মদ কামরুল ফারুক।
অনুষ্ঠানের সভাপতিত্ব করেন উপজেলা নির্বাহী অফিসার শাহাদাৎ হুসাইন। এসময় তিনি জানান মুক্তিযোদ্ধা জাদুঘর ও স্মৃতিস্তম্ভ তৈরিতে প্রকল্পের সম্পূর্ণ করেছি। এখন শুধু নির্মাণ কাজ শুরু।
এদিকে, কালিহাতী উপজেলার বানিয়াফৈর এলাকায় মুক্তিযোদ্ধা ও জনগণের সমাবেশে নৌকা মার্কার বিরুদ্ধে স্বতন্ত্র প্রার্থীকে অভিনন্দন জানিয়ে বক্তব্য দেওয়ায় কালিহাতী উপজেলা আওয়ামী লীগ। সেইসাথে নৌকা নিয়ে নির্বাচিত কালিহাতীর ইউপি চেয়ারম্যানরা ক্ষুব্ধ প্রতিক্রিয়া ব্যক্ত করেছেন।