টাঙ্গাইল ০৩:৪২ পূর্বাহ্ন, শনিবার, ১৫ জুন ২০২৪, ৩১ জ্যৈষ্ঠ ১৪৩১ বঙ্গাব্দ
সর্বশেষ খবর :
ব্রেকিং নিউজ :

স্বামী পছন্দ না হওয়ায় নববধূর বিষপান

মো: নাহিদ খান
  • প্রকাশিত : রবিবার, ৩০ জানুয়ারি ২০২২
  • / ৫৮ বার পড়া হয়েছে

স্বামী পছন্দ না হওয়ায় বিয়ের ৯ দিনের মাথায় চুয়াডাঙ্গা সদর উপজেলায় এক কিশোরী বধূ বিষপানে আত্মহত্যা করেছে।

শনিবার সন্ধ্যায় উপজেলার বড়শলুয়া গ্রামে নিজ বাড়িতে বিষপানে সে আত্মহত্যা করে।

নববধূ রজনী খাতুন (১৩) চুয়াডাঙ্গা সদর উপজেলার বড়শলুয়া গ্রামের জাহাঙ্গীর মণ্ডলের মেয়ে এবং স্থানীয় আরাফাত হোসেন সরণি বিদ্যাপীঠের সপ্তম শ্রেণির ছাত্রী ছিল।

পরিবার সূত্রে জানা যায়, মাত্র ৯ দিন আগে রজনীকে ইচ্ছার বিরুদ্ধে একই উপজেলার যদুপুর গ্রামের সাগর হোসাইনের সঙ্গে বিয়ে দেয় পরিবার। স্বামীকে পছন্দ না হওয়ায় তিনি শ্বশুরবাড়িতে যাবেন না বলে পরিবারকে জানিয়ে দেন। স্বামী এসে শনিবার রাতে শ্বশুরবাড়িতে নিয়ে যাওয়ার কথা ছিল।

স্বামী আসবে জানতে পেরে শনিবার সন্ধ্যা ৭টার দিকে বিষপান করে রজনী। একপর্যায়ে রজনীকে উদ্ধার করে স্থানীয় চিকিৎসকের কাছে নেওয়া হলে তাকে মৃত বলে ঘোষণা করা হয়।

দর্শনা থানার ওসি এএইচএম লুৎফুল কবীর যুগান্তরকে বলেন, অল্প বয়সে বিয়ে দিয়েছিল তার পরিবার। স্বামীকে পছন্দ হয়নি বলে বাবাকে জানিয়েছিল সে।

মূলত এ কারণেই রজনী আত্মহত্যা করে থাকতে পারে বলে প্রাথমিকভাবে ধারণা করছি। এ ঘটনায় দর্শনা থানায় একটি অপমৃত্যু মামলা করা হয়েছে।

ট্যাগস :

নিউজটি শেয়ার করুন

স্বামী পছন্দ না হওয়ায় নববধূর বিষপান

প্রকাশিত : রবিবার, ৩০ জানুয়ারি ২০২২

স্বামী পছন্দ না হওয়ায় বিয়ের ৯ দিনের মাথায় চুয়াডাঙ্গা সদর উপজেলায় এক কিশোরী বধূ বিষপানে আত্মহত্যা করেছে।

শনিবার সন্ধ্যায় উপজেলার বড়শলুয়া গ্রামে নিজ বাড়িতে বিষপানে সে আত্মহত্যা করে।

নববধূ রজনী খাতুন (১৩) চুয়াডাঙ্গা সদর উপজেলার বড়শলুয়া গ্রামের জাহাঙ্গীর মণ্ডলের মেয়ে এবং স্থানীয় আরাফাত হোসেন সরণি বিদ্যাপীঠের সপ্তম শ্রেণির ছাত্রী ছিল।

পরিবার সূত্রে জানা যায়, মাত্র ৯ দিন আগে রজনীকে ইচ্ছার বিরুদ্ধে একই উপজেলার যদুপুর গ্রামের সাগর হোসাইনের সঙ্গে বিয়ে দেয় পরিবার। স্বামীকে পছন্দ না হওয়ায় তিনি শ্বশুরবাড়িতে যাবেন না বলে পরিবারকে জানিয়ে দেন। স্বামী এসে শনিবার রাতে শ্বশুরবাড়িতে নিয়ে যাওয়ার কথা ছিল।

স্বামী আসবে জানতে পেরে শনিবার সন্ধ্যা ৭টার দিকে বিষপান করে রজনী। একপর্যায়ে রজনীকে উদ্ধার করে স্থানীয় চিকিৎসকের কাছে নেওয়া হলে তাকে মৃত বলে ঘোষণা করা হয়।

দর্শনা থানার ওসি এএইচএম লুৎফুল কবীর যুগান্তরকে বলেন, অল্প বয়সে বিয়ে দিয়েছিল তার পরিবার। স্বামীকে পছন্দ হয়নি বলে বাবাকে জানিয়েছিল সে।

মূলত এ কারণেই রজনী আত্মহত্যা করে থাকতে পারে বলে প্রাথমিকভাবে ধারণা করছি। এ ঘটনায় দর্শনা থানায় একটি অপমৃত্যু মামলা করা হয়েছে।