টাঙ্গাইল ০৪:১৭ পূর্বাহ্ন, শনিবার, ১৫ জুন ২০২৪, ৩১ জ্যৈষ্ঠ ১৪৩১ বঙ্গাব্দ
সর্বশেষ খবর :
ব্রেকিং নিউজ :

বিজয়ী ইউপি সদস্যের গলায় টাকার মালা পরিয়ে এসআই প্রত্যাহার

মো: নাহিদ খান
  • প্রকাশিত : বৃহস্পতিবার, ১৩ জানুয়ারি ২০২২
  • / ৪৯ বার পড়া হয়েছে

বিজয়ী এক ইউপি সদস্যকে টাকার মালা দিয়ে বরণ করায় হবিগঞ্জের মাধবপুর থানার পুলিশের উপপরিদর্শক (এসআই) মমিনুল ইসলামকে ক্লোজ করা হয়েছে।

গত বুধবার হবিগঞ্জ পুলিশ সুপার এমএম মুরাদ আলী স্বাক্ষরিত এক পত্রে প্রশাসনিক কারণে তাকে পুলিশলাইন্সে সংযুক্ত হওয়ার আদেশ দেওয়া হয়। বৃহস্পতিবার সকালে তিনি পুলিশ লাইনে যোগ দিয়েছেন।

উল্লেখ্য, এসআই (নিরস্ত্র) মমিনুল ইসলাম গত ৬ জানুয়ারি বাঘাসুরা ইউনিয়নের নির্বাচিত ইউপি সদস্য তাজুল ইসলাম মহালদারের গলায় টাকার মালা পরিয়ে বরণ করেন। ওই ইউনিয়নের বিট কর্মকর্তার দায়িত্বে ছিলেন এসআই মমিনুল ইসলাম।

এ নিয়ে লোকজনের মধ্যে আলোচনা-সমালোচনা শুরু হয়।
মাধবপুর থানার ওসি মুহাম্মদ আব্দুর রাজ্জাক সত্যতা নিশ্চিত করে বলেন, পুলিশলাইনে এসআই মমিনুল ইসলামকে ক্লোজ করা হয়েছে। তবে কি কারণে তাকে ক্লোজ করা হয়েছে তা বলা হয়নি। শুধু প্রশাসনিক কারণ উল্লেখ করা হয়েছে।

এ ব্যাপারে এসআই মমিনুল ইসলাম বলেন, আমি বাঘাসুরা বিটের দায়িত্বে ছিলাম। আইনশৃঙ্খলাসহ নানা কাজে জনপ্রতিনিধিদের কাজ করতে হয়। আমি এলাকায় গেলে অন্যরা তাকে মালা দিচ্ছিলেন। আমি না বুঝে অন্যের হাতের মালা দিয়েছি।

 

ট্যাগস :

নিউজটি শেয়ার করুন

বিজয়ী ইউপি সদস্যের গলায় টাকার মালা পরিয়ে এসআই প্রত্যাহার

প্রকাশিত : বৃহস্পতিবার, ১৩ জানুয়ারি ২০২২

বিজয়ী এক ইউপি সদস্যকে টাকার মালা দিয়ে বরণ করায় হবিগঞ্জের মাধবপুর থানার পুলিশের উপপরিদর্শক (এসআই) মমিনুল ইসলামকে ক্লোজ করা হয়েছে।

গত বুধবার হবিগঞ্জ পুলিশ সুপার এমএম মুরাদ আলী স্বাক্ষরিত এক পত্রে প্রশাসনিক কারণে তাকে পুলিশলাইন্সে সংযুক্ত হওয়ার আদেশ দেওয়া হয়। বৃহস্পতিবার সকালে তিনি পুলিশ লাইনে যোগ দিয়েছেন।

উল্লেখ্য, এসআই (নিরস্ত্র) মমিনুল ইসলাম গত ৬ জানুয়ারি বাঘাসুরা ইউনিয়নের নির্বাচিত ইউপি সদস্য তাজুল ইসলাম মহালদারের গলায় টাকার মালা পরিয়ে বরণ করেন। ওই ইউনিয়নের বিট কর্মকর্তার দায়িত্বে ছিলেন এসআই মমিনুল ইসলাম।

এ নিয়ে লোকজনের মধ্যে আলোচনা-সমালোচনা শুরু হয়।
মাধবপুর থানার ওসি মুহাম্মদ আব্দুর রাজ্জাক সত্যতা নিশ্চিত করে বলেন, পুলিশলাইনে এসআই মমিনুল ইসলামকে ক্লোজ করা হয়েছে। তবে কি কারণে তাকে ক্লোজ করা হয়েছে তা বলা হয়নি। শুধু প্রশাসনিক কারণ উল্লেখ করা হয়েছে।

এ ব্যাপারে এসআই মমিনুল ইসলাম বলেন, আমি বাঘাসুরা বিটের দায়িত্বে ছিলাম। আইনশৃঙ্খলাসহ নানা কাজে জনপ্রতিনিধিদের কাজ করতে হয়। আমি এলাকায় গেলে অন্যরা তাকে মালা দিচ্ছিলেন। আমি না বুঝে অন্যের হাতের মালা দিয়েছি।