টাঙ্গাইল ০৮:১২ অপরাহ্ন, রবিবার, ১৪ এপ্রিল ২০২৪, ১ বৈশাখ ১৪৩১ বঙ্গাব্দ
সর্বশেষ খবর :
নানার বাড়ি বেড়াতে এসে  নদীতে গোছল করতে নেমে মাদ্রাসার ছাত্র  নিখোঁজ  কালিহাতীতে নববর্ষ উপলক্ষে শুভেচ্ছা বিনিময় ও সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠান  পবিত্র ঈদুল ফিতরের শুভেচ্ছা জানিয়েছেন কালিহাতী উপজেলা ভাইস চেয়ারম্যান পদপ্রার্থী মোঃ মোখলেছুর রহমান পবিত্র ঈদুল ফিতরের শুভেচ্ছা জানিয়েছেন কালিহাতী  উপজেলা ভাইস চেয়ারম্যান পদপ্রার্থী  মোঃ আব্দুল বারেক সরকার  কালিহাতী রিপোর্টার্স ইউনিটির ইফতার ও পরিচিতি সভা অনুষ্ঠিত পবিত্র ঈদুল ফিতরের শুভেচ্ছা জানিয়েছেন মো: শরিফুল ইসলাম পেঁয়াজের৷দাম ধ্বংস হচ্ছে কালিহাতীর গ্রামীণ জনপদ : ‘সিন্ডিকেটে’ চলছে বালুর ব্যবসা কালিহাতীতে বীর মুক্তিযোদ্ধা ও স্থানীয়দের সাথে মুক্তিযুদ্ধ বিষয়ক মন্ত্রীর মতবিনিময় আবার ধর্ষণের অভিযোগ বড় মনিরের বিরুদ্ধে !
ব্রেকিং নিউজ :

কালিহাতী বীরবাসিন্দা ইউনিয়ন পরিষদের জায়গা বেদখল

সাইদুর রহমান সমীর, বিশেষপ্রতিনিধি
  • প্রকাশিত : বৃহস্পতিবার, ২২ ফেব্রুয়ারি ২০২৪
  • / ৫৫৫ বার পড়া হয়েছে

কালিহাতী বীরবাসিন্দা ইউনিয়ন পরিষদের জায়গা বেদখল
সাইদুর রহমান সমীর, বিশেষপ্রতিনিধি
কালিহাতী উপজেলায় বীরবাসিন্দা ইউনিয়ন পরিষদের জায়গা বেদখল হওয়ার খবর পাওয়া গেছে।তথ্যানুসন্ধানে জানা যায় বহুদিন আগে বীরবাসিন্দা ইউনিয়ন পরিষদের ভবন নির্মাণের জন্য গন্দু,শুকুর মাহমুদ এবং তার মা,মিনহাজ, মুসা এর স্ত্রী কাছ থেকে জমিটি ক্রয় করেন,এম হোসেন আলী সাবেক বীরবাসিন্দা চেয়ারম্যান । জমি বিক্রি করার পরও এই জায়গা বেদখল করে আছে শরীফ,খুরুম,সুজন,আরিফ, শফিকুল ইসলাম, রাজা মাহমুদ,গন্দু,শুকর মাহমুদ গাংরা।এরা রাতের অন্ধকারে নিজস্ব ক্যাডার বাহিনী দিয়ে ঘর নির্মাণ করে আছেন বাহুবলে।বীরবাসিন্দা ইউনিয়ন পরিষদের জায়গা বেদখল করার পর শুকুর মাহমুদ গংদের বিরুদ্ধে চার-পাঁচ টি মামলা করা হয় জমি পুনরুদ্ধার জন্য সে মেতাবেক সরকারি রায় আসে ইউনিয়ন পরিষদের পক্ষে। তারপরও জমি বেদখল করে রেখেছে তারা।এ ব্যাপারে কালিহাতী উপজেলা প্রশাসনের হস্তক্ষেপ কামনা করছেন উক্ত ঘটনা নিষ্পতির জন্য।

ট্যাগস :

নিউজটি শেয়ার করুন

কালিহাতী বীরবাসিন্দা ইউনিয়ন পরিষদের জায়গা বেদখল

প্রকাশিত : বৃহস্পতিবার, ২২ ফেব্রুয়ারি ২০২৪

কালিহাতী বীরবাসিন্দা ইউনিয়ন পরিষদের জায়গা বেদখল
সাইদুর রহমান সমীর, বিশেষপ্রতিনিধি
কালিহাতী উপজেলায় বীরবাসিন্দা ইউনিয়ন পরিষদের জায়গা বেদখল হওয়ার খবর পাওয়া গেছে।তথ্যানুসন্ধানে জানা যায় বহুদিন আগে বীরবাসিন্দা ইউনিয়ন পরিষদের ভবন নির্মাণের জন্য গন্দু,শুকুর মাহমুদ এবং তার মা,মিনহাজ, মুসা এর স্ত্রী কাছ থেকে জমিটি ক্রয় করেন,এম হোসেন আলী সাবেক বীরবাসিন্দা চেয়ারম্যান । জমি বিক্রি করার পরও এই জায়গা বেদখল করে আছে শরীফ,খুরুম,সুজন,আরিফ, শফিকুল ইসলাম, রাজা মাহমুদ,গন্দু,শুকর মাহমুদ গাংরা।এরা রাতের অন্ধকারে নিজস্ব ক্যাডার বাহিনী দিয়ে ঘর নির্মাণ করে আছেন বাহুবলে।বীরবাসিন্দা ইউনিয়ন পরিষদের জায়গা বেদখল করার পর শুকুর মাহমুদ গংদের বিরুদ্ধে চার-পাঁচ টি মামলা করা হয় জমি পুনরুদ্ধার জন্য সে মেতাবেক সরকারি রায় আসে ইউনিয়ন পরিষদের পক্ষে। তারপরও জমি বেদখল করে রেখেছে তারা।এ ব্যাপারে কালিহাতী উপজেলা প্রশাসনের হস্তক্ষেপ কামনা করছেন উক্ত ঘটনা নিষ্পতির জন্য।